চট্টগ্রামে ব্যবসায়ীকে ‘প্রেমের ফাঁদে’ আটকে মুক্তিপণ আদায়ের চেষ্টা, নারীসহ আটক ৪

212

চট্টগ্রাম নগরীর ধনাঢ্য এক ব্যবসায়ীকে ব্যবসায়ীকে ‘প্রেমের সম্পর্ক’ গড়ে জিম্মি করে মুক্তিপণ আদায়ের চেষ্টাকালে জড়িত নারীসহ চারজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতার চারজন হলেন, মো. নাসির উদ্দিন (৩৫), প্রদীপ দাশ (৩৫), হাসিনা আক্তার প্রকাশ মুক্তা (৪৫) ও ছালেহা আক্তার (৪০)।

মঙ্গলবার (৭ মে) পর্যন্ত নগরের চান্দগাঁও এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেফতার করে কোতোয়ালী থানা পুলিশ। এদের মধ্যে বিকাশ এজেন্টের কাছে মুক্তিপণের টাকা আনতে গেলে হাসিনা আক্তারকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

এরপর তার দেওয়া তথ্য অনুযায়ী অভিযান চালিয়ে গ্রেফতার করা হয় অপর তিনজনকে।

কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ মহসীন জানান, সোমবার দুপুরে নগরীর আছাদগঞ্জ শুটকি পট্টি এলাকার ব্যবসায়ী আলতাফ হোসেন (৫০) অপহরণের শিকার হন। তাকে চামড়ার গুদাম এলাকা থেকে নাসির, প্রদীপসহ তিনজন জোর করে সিএনজিচালিত অটোরিকশায় তুলে নিয়ে চান্দগাঁও এলাকায় যায়।

সেখান থেকে আলতাফ হোসেনকে নগরীর চান্দগাঁও থানার শরাফত উল্লাহ পেট্রল পাম্পের পাশে নূর মঞ্জিল নামে একটি ভবনের তৃতীয় তলার ফ্ল্যাটে নেওয়া হয়। সেখানে তার গলায় বটি ধরে মেরে ফেলার ‍হুমকি দেয় হাসিনা ও তার সহযোগীরা।

এরপর ব্যবসায়ীর আপত্তিকর ছবি তোলা হয়। অপহরণকারীরা হুমকি দেয়, ৪ লাখ টাকা না দেওয়া হলে ছবিগুলো সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়া হবে।

তিনি আরো জানান, পরে আলতাফের পরিবার থানায় এসে অভিযোগ করে। বিকাশে টাকা পাঠানোর জন্য নম্বর নিয়ে পরে তাদের অবস্থান শনাক্ত করে সেখানে অভিযান চালিয়ে হাসিনা আক্তারকে গ্রেফতার করা হয়। তার দেওয়া তথ্যে অন্য তিনজনকে গ্রেফতার করা হয় এবং আলতাফকে উদ্ধার করা হয়।

এ চক্রের সদস্যরা ব্যবসায়ীদের টার্গেট করে তাদের মোবাইল নম্বর সংগ্রহ করে প্রেমের ফাঁদে ফেলে। পরে বাসায় দাওয়াত দিয়ে নিয়ে এসে অশ্লীল ছবি তুলে সেই ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে মুক্তিপণ আদায় করে।

কোতোয়ালি থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. কামরুজ্জামান বলেন, “গ্রেপ্তার চারজন একটি সংঘবদ্ধ পেশাদার অপরাধী চক্র। তারা দীর্ঘদিন ধরে এই ধরনের অপরাধ করে আসছে।

আমাদের কাছে তথ্য আছে, চক্রটি এই পর্যন্ত নগরীতে এ ধরনের অন্তত ৫০টি অপরাধ সংঘটিত করেছে। কিন্তু ভুক্তভোগীরা মানসম্মানের ভয়ে থানায় কোনো মামলা করেনি।”

মুক্তা বলছেন, ২০০৭ সাল থেকে ব্যবসায়ী আলতাফের সঙ্গে তার পরিচয়। মাঝে দুই বছর যোগাযোগ না থাকলেও রোববার তিনি ফোন করলে আলতাফ চান্দগাঁওয়ের ওই ফ্ল্যাটে যান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here