বারইয়ারহাটে শিশু খাদ্য কারখানায় অভিযান, মালিককে ৪ মাসের কারাদন্ড

118

 

মিরসরাইয়ে ভেজাল একটি শিশু খাদ্য কারখানায় অভিযান চালিয়েছে ভ্রাম্যমান আদালত। বুধবার (২৯ মার্চ) বিকালে বারইয়ারহাট পৌরসভার ৪ নন্বর ওয়ার্ডের কমফোর্ট হাসপাতাল ভবনের নিচে গড়ে উঠা ওই কারখানায় অভিযান চালান ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাহফুজা জেরিন।
এসময় শিশু খাদ্য বিষাক্ত রং ও বিভিন্ন কেমিক্যাল মিশানো এবং কারখানায় কোন অনুমোদন না থাকায় কারখানার মালিক আনোয়ার হোসেনকে চার মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড দেয়া হয়েছে।

জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরে দেশের বিভিন্ন নামকরা কোম্পানীর পণ্যের মোড়কের আদলে মোড়ক ছাপিয়ে পাঁচ রকমের শিশু খাদ্য চিপস্, তেঁতুল, জলপাইয়ের আচার, পাম্প অয়েলে কেমিক্যাল মিশিয়ে সয়াবিন তেল বোতলজাত করা হতো। শিশুদের লোভে ফেলতে চিপস্ ও আচারের মোড়কের ভেতর দেয়া হতো নগদ টাকা। চাষী চিনি গুঁড়া চালের প্যাকেট করা হতো ওই কারখানায়। মোড়ক গুলোতে পন্য না থাকলেও মোড়কে ছাপা হয়েছে মেয়াদ উত্তীর্ণের তারিখ। চিপস্ ভাজার বড় কড়াইতে তেলের মধ্যে ভাসছে পোকামাকড়।

অভিযান চলাকালে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মাহফুজা জেরিনকে সহযোগীতা করেন বারইয়ারহাট পৌরসভার সচিব সমর চাকমা ও প্রকৌশলী সমর মজুমদার। অভিযান শেষে ভেজাল শিশু খাদ্যগুলো প্রকাশ্যে ধ্বংস করে দেয়া হয়।
নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাহফুজা জেরিন জানান, ভেজাল শিশু খাদ্য উৎপাদন ও কারখানার কোন অনুমোদন না থাকায় ভোক্তা অধিকার আইন ২০১৯ এর ৫৩ ধারায় কারখানার মালিক আনোয়ার হোসেনকে চার মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড দেয়া হয়েছে।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here