মহাসড়কে ডাকাতির কবলে জোরারগঞ্জ হাইওয়ে থানার ওসি

112

নিজস্ব প্রতিনিধি

জোরারগঞ্জ হাইওয়ে থানার ওসি মো. আলমগীর হোসেন
নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে ডাকাতির কবলে পড়েছেন চট্টগ্রামের জোরারগঞ্জ হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আলমগীর হোসেন ও তার গাড়িচালক মো. ইয়াছিন বাদশা। এসময় ডাকাতরা তাদের কুপিয়ে নগদ টাকা, মোবাইলফোন ও এটিএম কার্ড নিয়ে যায়।

এ ঘটনায় শনিবার (১ অক্টোবর) রাতে ওসি বাদী হয়ে সোনারগাঁ থানায় অজ্ঞাতপরিচয় ৪-৫ জন ডাকাতের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন।

এর আগে গত শুক্রবার (৩০ সেপ্টেম্বর) ভোরে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মেঘনা টোলপ্লাজা এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর আহত ওসি আলমগীর ও গাড়িচালক ইয়াছিন বাদশা চট্টগ্রামে চিকিৎসাধীন আছেন।

মামলার এজাহার থেকে জানা যায়, গত শুক্রবার ভোরের দিকে চট্টগ্রামের জোরারগঞ্জ হাইওয়ে থানার ওসি মো. আলমগীর হোসেন ও তার গাড়িচালক মো. ইয়াছিন বাদশা প্রাইভেটকারে ঢাকা থেকে কর্মস্থলে যাওয়ার পথে মেঘনা টোলপ্লাজা এলাকায় টোল দিতে গাড়ি থামান। এসময় তার আগে ৬-৭টি গাড়ি টোল দেওয়ার লাইনে ছিল। এতে করে সামান্য যানজটের সৃষ্টি হয়। এসময় অতর্কিতভাবে ওসিকে বহনকারী প্রাইভেটকারের চালকের মাথায় পিস্তল ঠেকিয়ে গুলি করার হুমকি দেয় ডাকাতরা।

পরে তারা প্রাইভেটকারের পেছনের দরজা টেনে-হিঁচড়ে খুলে ওসি আলমগীরকে বিভিন্ন স্থানে কুপিয়ে আহত করে। এসময় তাদের কাছ থেকে নগদ ১৯ হাজার টাকা, ৬০ হাজার টাকা মূল্যের চারটি মোবাইলফোন নিয়ে যায় তারা। পরে তাদের চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে ডাকাতরা পালিয়ে যায়। পরে তারা দ্রুত গৌরীপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে উন্নত চিকিৎসার জন্য ভর্তি হন।

কাঁচপুর হাইওয়ে থানার ওসি মো. নবীর হোসেন বলেন, ডাকাতির ঘটনায় ওসির প্রতিনিধি সোনারগাঁ থানায় মামলা করেছেন। মামলাটি সোনারগাঁ থানা পুলিশ তদন্ত করবে।

রোববার (২ অক্টোবর) সকালে মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নারায়ণগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (খ- অঞ্চল) শেখ বিল্লাল হোসেন। তিনি বলেন, ডাকাতির ঘটনায় মামলা হয়েছে। এর সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে দ্রুত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here