মিরসরাইয়ে শাহ আলম হত্যাকারী মো. সোহেল গ্রেপ্তার

251


মিরসরাই প্রতিনিধি::
মিরসরাইয়ের ওয়াহেদপুরে শাহ আলম নামের এক যুবককে কুপিয়ে হত্যার সাথে জড়িত একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গত বুধবার রাতে সংঘটিত ওই হত্যাকান্ডের ১৬ঘন্টার মধ্যে ঘাতক সোহেলকে চট্টগ্রাম শহরের অলংকার থেকে গ্রেফতার করেছে মিরসরাই থানা পুলিশ। গ্রেফতারকৃত সোহেল ওই এলাকার এরাদুল হকের পুত্র।
পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে সোহেল জানায়, শাহ আলমের সাথে আগে থেকে বিভিন্ন বিষয়ে দ্বন্ধ ছিলো। আর তাই শাহ আলমকে উচিত শিক্ষা দেয়ার জন্য অনেকদিন ধরে সে অপেক্ষায় ছিলো সোহেল এবং রায়হান। মূলত রায়হানের মদের ব্যবসায় বাধা দেয়ায় শাহআলম রায়হানেরও নজরে ছিলো অনেকদিন ধরে। গত বুধবার মিরসরাইয়ের পাহাড়ী এলাকায় শাহ আলমকে পেয়ে মারধর করে রায়হান ও সোহেল। তবে জানে মেরে ফেলা তাদের উদ্দেশ্য ছিলোনা বলে পুলিশকে জানায় সোহেল।
এএসপি সার্কেল (মিরসরাই) আবু ছালেহ মো. শামছুদ্দীন ও মিরসরাই থানার ওসি জাহেদুল কবির জানান, মূলত সোহেল অলংকার এলাকায় গিয়েছিলো অন্যত্র সটকে পড়তে। কারন চট্টগ্রামের ওই এলাকা থেকে সারা দেশে যাওয়ার গাড়ি পাওয়া যায়। আর অল্প হলে হয়ত সোহেলকে গ্রেপ্তার করা কষ্টকর হয়ে যেতো।


উল্লেখ্য চট্টগ্রামের মিরসরাইয়ে পূর্ব শত্রæতার জের ধরে রগ কেটে শাহ আলম (২৫) কে হত্যা করা হয়। সে মিরসরাই উপজেলার ওয়াহেদপুর ইউনিয়নের মধ্যম ওয়াহেদপুর গ্রামের আলী আকবরের ছেলে। বুধবার (৩১ অক্টোবর) সন্ধ্যায় ওয়াহেদপুরের পাহাড়ের পাদদেশে তার ক্ষতবিক্ষত মৃতদেহ পাওয়া যায়।
এই ঘটনায় শাহ আলমের চাচা জসীম উদ্দীন বাদি হয়ে সোহেল, রায়হান ও অজ্ঞাত আরো কয়েকজনকে আসামী করে মিরসরাই থানায় হত্যা মামলা দায়ের করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here