মিরসরাই পৌরসভা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী হয়েছেন নুরুল আবছার সেলিম

275

মিরসরাই প্রতিনিধি
আগামী ৪ঠা নভেম্বর মিরসরাই পৌরসভা আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন ঘিরে সরগরম সদরের রাজনীতি। সাধারণ সম্পাদক পদে কয়েকজন প্রার্থী হয়েছেন। তাদের মধ্যে অন্যতম উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক অধ্যাপক নুরুল আবছার সেলিম। সাধারণ সম্পাদক পদে জয়ী হতে দলের হাইকমান্ডের সাথে যোগাযোগ রক্ষার পাশাপাশি কাউন্সিলরদের দ্বারে দ্বারে যাচ্ছেন তিনি। আওয়ামীলীগের নেতা-কর্মীদের পাশাপাশি উপজেলা ও পৌরসভা ছাত্রলীগ-যুবলীগের একাধিক নেতা-কর্মী তার পক্ষে কোমর বেঁেধ মাঠে নেমেছেন। তবে সম্পাদক কে হচ্ছে? পুরনো থেকে যাচ্ছে নাকি নতুনের উপর আস্থা রাখছেন কাউন্সিলররা এই নিয়ে নানা জল্পনা-কল্পনা চলছে। আলোচনার কেন্দবিন্দুতে সাবেক ছাত্রনেতা তরুণ উদিয়মান আওয়ামীলীগ নেতা নুরুল আবছার সেলিম। সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হতে তিনি মরিয়া হয়ে উঠেছেন। তিনি সিলেকশান ও ইলেকশান দুটিতেই জয়ের ব্যাপারে শতভাগ আশাবাদী।

 

সেলিম বলেন, আমি ১০১২ সালে পৌরসভা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক পদে প্রার্থী হতে চেয়েছিলাম। কিন্তু সিনিয়র লিডারদের অনুরোধে পরিবর্তিতে প্রার্থী না হওয়ার সীদ্ধান্ত নিয়েছি। দলের তৃণমূলকে আরো সুসংগঠিত করতে ও প্রিয় নেতা ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেনের আদর্শ বাস্তবায়ন করতে প্রার্থী হয়েছি। তিনি আরো বলেন, ছাত্র জীবন থেকে রাজনীতির সাথে জড়িত রয়েছি। দলের দুর্দিনে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছি। অনেক হামলা, মামলা হয়েছে আমার উপর তারপরও কখনো দমিয়ে রাখতে পারেনি। ১৯৯৬ সালে তত্ত¡াবধায়ক সরকারের দাবীতে আন্দোলন, অসহযোগ আন্দোলনে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছি। রাজনীতির প্রতিহিংসার কারণে দুইবার গ্রেপ্তার হয়েছিলাম। ২০১৩-২০১৪ সালে জামায়াত-বিএনপির জ্বালাও পোড়াও সহ নাশকতামূলক কর্মকান্ড নেতা-কর্মীদের নিয়ে শক্ত হাতে প্রতিহত করেছি। বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে বুকে ধারন করে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মানে প্রিয় নেতার নির্দেশমত কাজ করে যাচ্ছি।

 

জানা গেছে, নুরুল আবছার সেলিম মিরসরাই পৌরসভায় জন্মগ্রহণ করেন। তার পিতা মরহুম জহুরুল হক সওদাগর মিরসরাই বাজরের সুপরিচিত একজন ব্যবসায়ী ছিলেন। মিরসরাই পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ে ১০ম শ্রেণীতে থাকা অবস্থায় ছাত্রলীগের রাজনীতি শুরু হয়। এরপর ১৯৯৩ সালে মিরসরাই কলেজ ছাত্রলীগের দপ্তর সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করি। পরবর্তিতে চট্টগ্রাম সরকারি কমার্স কলেজ ছাত্রলীগের প্রচার সম্পাদক, ছাত্র সংসদের সদস্য, উপজেলা ছাত্রলীগ এর সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক, সিনিয়র সহ-সভাপতি, জেলা ছাত্রলীগের শিক্ষা ও পাঠচক্র বিষয়ক সম্পাদকের দায়িত্বে ছিলেন। বর্তমানে উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক ও পৌরসভা যুবলীগের সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহবায়কের দায়িত্বে আছি। রাজনীতির বাইরে শিক্ষকতায় পেশাও জড়িত ছিলেন তিনি। প্রায় ৩ বছর মিরসরাই কলেজের একাউন্টিং বিভাগের প্রভাষক হিসেবে কর্মরত ছিলেন। এছাড়া তিনি মিরসরাই পৌর বাজার পরিচালনা কমিটির নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। ব্যক্তিগত জীবনে তিনি একজন সফল ব্যবসায়ী। তিনি বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় দোকান মালিক সমিতির সহ-সম্পাদক ও মিরসরাই সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতির দায়িত্বে রয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here