রেমিট্যান্স ১৫০০ ডলারের বেশি হলে চাওয়া হবে কাগজপত্র

357

প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্স ১ হাজার ৫০০ ডলারের বেশি হলেই নিরীক্ষার আওতায় আনা হবে বলে জানিয়েছেন অর্থ সচিব আবদুর রউফ তালুকদার। গতকাল নগদ সহায়তা সংক্রান্ত সভা শেষে এ তথ্য জানান তিনি।

অর্থ মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে গতকাল দুপুরে অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামালের সভাপতিত্বে রফতানির বিপরীতে সরকার প্রদত্ত নগদ সহায়তার বিদ্যমান হারগুলো পুনর্নির্ধারণ ও নতুন নতুন খাতে নগদ সহায়তা প্রদান বিষয়ে সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভা শেষে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন অর্থ সচিব।

আবদুর রউফ তালুকদার বলেন, আমরা রফতানি খাতে প্রণোদনা দিয়ে থাকি। আজকের (গতকাল) সভাটি ছিল আমাদের বার্ষিক সভা। আমরা নতুন কিছু খাতে নগদ সহায়তা বাড়িয়েছি। রফতানিতে প্রণোদনা বাড়ানোর জন্য ২৪টি প্রস্তাব পেয়েছিলাম। এর মধ্য থেকে আমরা যাচাই-বাছাই করে বেশ কয়েকটি পণ্যে প্রণোদনা বাড়িয়েছি। এর মধ্যে পোশাক খাতে ইউরোপ-আমেরিকায় পণ্য রফতানিতে ১ শতাংশ প্রণোদনা, মেডিকেল সার্জিক্যাল যন্ত্রাংশে ১০ শতাংশ, মহিষের নাড়ি, ভুঁড়ি ও শিং রফতানিতে, পাটকাঠি থেকে উত্পাদিত কার্বন, ফার্মাসিউটিক্যাল পণ্য, কেমিক্যাল পণ্য, সফটওয়্যার, হার্ডওয়্যার ও আইটিইএস পণ্য, শস্য, শাকসবজি, পেট বোতল, সুপারি পাতার তৈরি পণ্য, ঝুট কাপড় দিয়ে তৈরি পণ্যে ১০ শতাংশ প্রণোদনা দেয়া হবে। এছাড়া ‘সি’ ক্যাটাগরির সিনথেটিক পণ্য, ইপিজেডের অ্যাগ্রোপ্রসেসিং পণ্যে ৪ শতাংশ প্রণোদনা দেয়া হবে।

তিনি বলেন, হালকা প্রকৌশল খাতের মধ্যে ওয়ালটন হোম অ্যাপ্লায়েন্সের ওপর আবেদন করলে সেখানে নতুন করে প্রণোদনা দেয়া হয়েছে। এক্ষেত্রে আগের নিয়ম অনুযায়ী ১০ শতাংশ প্রণোদনা দেয়া হয়েছে। নতুন করে প্রণোদনার আওতায় আসা সব পণ্যে ৩০ শতাংশ মূল্য সংযোজন নিশ্চিত করতে হবে এবং কাস্টমসের নিরীক্ষার আওতাভুক্ত হতে হবে বলে জানান তিনি।

অর্থ সচিব বলেন, পোশাক খাতে যারা কোনো দিন কোনো প্রণোদনা পায়নি, তাদের ১ শতাংশ আর্থিক সুবিধা দেয়া হয়েছে। বিশেষ করে ইউরোপ-আমেরিকায় পোশাক রফতানিতে নতুন করে ১ শতাংশ প্রণোদনা দেয়া হবে। আমরা যদি পোশাক খাতে ২ হাজার ৮০০ কোটি টাকা দিই, তাহলে এর থেকে বেশি লাভ হবে। বর্তমানে এ খাতে ৩ থেকে সাড়ে ৩ হাজার কোটি টাকা ব্যয় হয়। নতুন করে আরো ২ হাজার ৮০০ কোটি টাকা যোগ হলো।

রেমিট্যান্স খাতে প্রণোদনা প্রসঙ্গে অর্থ সচিব বলেন, প্রবাসীদের পাঠানো রেমিট্যান্সে সরকার এখন থেকে ২ শতাংশ প্রণোদনার ঘোষণা দিয়েছে বাজেটে। এক্ষেত্রে একটি নিয়ম অনুসরণ করে সবাইকে রেমিট্যান্স পাঠাতে হবে। সেটা হলো ১ হাজার ৫০০ ডলারের বেশি রেমিট্যান্স পাঠালেই তাদের নিরীক্ষার আওতায় আসতে হবে। এ বিষয়ে আজ অনুমোদন দেয়া হলো। এ সপ্তাহের মধ্যেই বাংলাদেশ ব্যাংক প্রজ্ঞাপন জারি করে সবাইকে জানিয়ে দেবে বলে জানান তিনি।

এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, কোনো প্রবাসী ১ হাজার ৫০০ ডলার রেমিট্যান্স পাঠালে তাকে কোনো প্রশ্ন না করে রেমিট্যান্সের বিপরীতে ২ শতাংশ আর্থিক সহায়তা দেয়া হবে। কিন্তু কেউ যদি ১ হাজার ৫০০ ডলারের বেশি পাঠান, তবে তার কাছে কিছু কাগজপত্র চাওয়া হবে। তবে রেমিট্যান্স পাঠানোর কোনো ঊর্ধ্বসীমা বা আপার লিমিট নেই।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here