স্থগিতাদেশ এবং বাদপড়াদের আপিল ৩ হতে ৫ ডিসেম্বর, নিষ্পত্তি ৬ হতে ৮ ডিসেম্বর

306

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র বাছাইয়ে বাদ পড়া প্রার্থীরা আপিল করতে পারবেন। ৩ হতে ৫ ডিসেম্বর নির্বাচন কমিশনে রিটার্নিং অফিসারের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে তারা আপিল করতে পারবে। ৬ হতে ৮ ডিসেম্বর আপিল নিস্পত্তি করবে কমিশন। ইসির নির্বাচন পরিচালনা শাখার যুগ্ম সচিব ফরহাদ আহাম্মদ খান বলেন, রিটার্নিং কর্মকর্তারা বাছাইয়ের পর যাদের আবেদন অবৈধ বা বাতিল হয়েছে, তারা নির্বাচন কমিশনে আপিল করতে পারবেন।

এছাড়া যাদের মনোনয়নপত্র বৈধ হয়েছে, তাদের বিরুদ্ধেও সংক্ষুদ্ধ ব্যক্তিরা আবেদন করতে পারবেন। আগামী ৩, ৪ ও ৫ ডিসেম্বরের মধ্যে নির্বাচন কমিশনে আপিল করতে হবে। আর নির্বাচন কমিশন সেই অভিযোগ আমলে নিয়ে ৬, ৭ ও ৮ ডিসেম্বর শুনানি করে সিদ্ধান্ত দেবেন। এক্ষেত্রে নির্বাচন কমিশনই আপিল কর্তৃপক্ষের ভূমিকা পালন করবেন।

নির্বাচন কমিশনের কাছে অভিযোগ দিয়েও কেউ আশানুরুপ ফল না পেলে আদালতেও যেতে পারবেন। এক্ষেত্রে কেউ নির্বাচিত হওয়ার পরও অভিযোগ প্রমাণ হলে সংশ্লিষ্ট বিজয়ী প্রার্থীর প্রার্থীতা বাতিল হতে পারে। প্রসঙ্গত, একাদশ সংসদ নির্বাচনের তফসিল অনুযায়ী আগামী ৯ ডিসেম্বর প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ সময়।

১০ ডিসেম্বর প্রতীক বরাদ্দ হবে। আর ৩০ ডিসেম্বর ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। এ নির্বাচনে প্রার্থী হওয়ার জন্য ঢাকা বিভাগে ৭০৮ জন, চট্টগ্রামে ৬৮৮ জন, রংপুরে ৩৬১ জন, রাজশাহীতে ৩৫৩ জন, খুলনায় ৩৫১ জন, বরিশালে ১৮২ জন, ময়মনসিংহে ২৩৬ জন এবং সিলেট ১৭৭ জন মনোনয়নপত্র দাখিল করেছিলেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here