মনোনয়ন বাতিল হলো আলোচিত যেই প্রার্থীদের

276

 

নিজস্ব প্রতিনিধি

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য দাখিলকরা মনোনয়ন পত্র যাচাই বাছাইয়ের দিন ছিলো রোববার। এদিন বিভিন্ন কারণে বাতিল করা হয়েছে বেশ কয়েকজন আলোচিত প্রার্থীর মনোনয়ন পত্র।

খালেদা জিয়া

বিবিসি বাংলা সার্ভিস জানায়, দুর্নীতির মামলায় সাজাপ্রাপ্ত বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মনোনয়ন পত্র বাতিল করা হয়েছে ফেনী-১ আসনে। বগুড়া-৬ এবং বগুড়া-৭ আসনে খালেদা জিয়ার মনোনয়ন পত্রও বাতিল হয়েছে।

গোলাম মাওলা রনি
পটুয়াখালী-৩ আসনের বিএনপি মনোনীত প্রার্থী গোলাম মাওলা রনির মনোনয়ন পত্র বাতিল করেছেন রিটার্নিং অফিসার। পটুয়াখালীর জেলা প্রশাসক ও রিটার্নিং অফিসার মতিউল ইসলাম চৌধুরী জানান, ‘হলফনামায় প্রার্থীর স্বাক্ষরে একজন আইনজীবির প্রত্যয়ন দরকার হয়। তার হলফনামায় স্বাক্ষরও ছিল না এবং যেই আইনজীবির নাম উল্লেখিত ছিল তাকে যোগাযোগ করে পাওয়া যায়নি।’

রেজা কিবরিয়া
হবিগঞ্জ-১ আসন থেকে গণফোরাম মনোনীত প্রার্থী ছিলেন আওয়ামী লীগ সরকারের সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এএমএস কিবরিয়ার ছেলে রেজা কিবরিয়া; তার মনোনয়ন পত্রও বাতিল হয়েছে। ব্যাংকের ক্রেডিট কার্ডের পাওনা বাকি থাকায় মনোনয়ন পত্র বাতিল হয়েছে মি. কিবরিয়ার।

কাদের সিদ্দিকী
টাঙ্গাইলে কৃষক শ্রমিক জনতা লীগের সভাপতি কাদের সিদ্দিকীর মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে। ঋণ খেলাপির অভিযোগে একাদশ সংসদ নির্বাচনের টাঙ্গাইলের রিটার্নিং কর্মকতা ও জেলা প্রশাসক শহীদুল ইসলাম তার মনোনয়নপত্র বাতিল করেন। কাদের সিদ্দিকী টাঙ্গাইল-৪ (কালিহাতী) ও টাঙ্গাইল-৮ (বাসাইল সখীপুর) আসন থেকে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন।

এম মোর্শেদ খান
চট্টগ্রাম-৮ আসনে বিএনপির প্রার্থী এম মোরশেদ খানের মনোননয়ন পত্র বাতিল করা হয়েছে।

গিয়াস উদ্দিন কাদের চৌধুরী
মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে ফাঁসি কার্যকর হওয়া বিএনপি নেতা সালাহউদ্দিন কাদের চৌধুরীর ভাই ও ভাতিজার মনোনয়ন বাতিল হয়েছে। চট্টগ্রাম-৭ (রাঙ্গুনিয়া) ও চট্টগ্রাম-২ (ফটিকছড়ি) আসন থেকে সাকা চৌধুরীর ভাই গিয়াস উদ্দিন কাদের চৌধুরী ও তাঁর ছেলে সামির কাদের চৌধুরী চট্টগ্রাম ৬ (রাউজান) আসন থেকে বিএনপির প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছিলেন। ঋণ খেলাপির অভিযোগে তাদের মনোনয়নপত্র বাতিল হয়।

মীর নাছির
বিএনপি নেতা ও সাবেক প্রতিমন্ত্রী মীর মো. নাছির উদ্দিন ও তাঁর ছেলে মীর মো. হেলাল উদ্দিনের মনোনয়নপত্র বাতিল হয়েছে। তারা চট্টগ্রাম-৫ আসন থেকে মনোনয়ন পত্র দাখিল করেছিলেন। মামলা রয়েছে উল্লেখ করে ওই দুজনের মনোনয়নপত্র বাতিল করেন রিটার্নিং কর্মকর্তা ও চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার মো. আবদুল মান্নান।

ব্যারিস্টার আমিনুল হক

রাজশাহী-১ (তানোর-গোদাগাড়ী) আসনে বিএনপির প্রার্থী ও সাবেক মন্ত্রী ব্যারিস্টার আমিনুল হকের মনোনয়নপত্র বাতিল হয়েছে। মামলাসংক্রান্ত সার্টিফাইড কপি না থাকায় তার মনোনয়নপত্র বাতিল করে দেন রিটার্নিং কর্মকর্তা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here