সেই ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছে শোচনীয় হার ভারতের

312

ক্রীড়া প্রতিবেদক

৫৫ রানে ওয়েস্ট ইন্ডিজের যখন তৃতীয় উইকেটের পতন ঘটেছিল, তখন খেলা কোন দিকে যাচ্ছে, তা অনেকেই হয়তো বুঝে ফেলেছিলেন। কিন্তু ক্রিকেট যে অনিশ্চয়তার খেলা। নইলে সেই ওয়েস্ট ইন্ডিজ কিনা শেষ পর্যন্ত করে ৯ উইকেটে ২৮৩ রান। কিন্তু বিরাট কোহলির ভারতের সামনে এটি কি বড় কোনো চ্যালেঞ্জ? কোহলি নিজেই তো এই ম্যাচেও সেঞ্চুরি করে বসলেন। কিন্তু না, সেই ওয়েস্ট ইন্ডিজের কাছেই শোচনীয়ভাবে হারতে হলো ভারতকে। ৪৩ রানে জিতে ৫ ম্যাচ সিরিজে ১-১-এ সমতা ফেরাল সফরকারীরা। প্রথম ম্যাচে ভারত জিতেছিল। নাটকীয়তায় ভরা দ্বিতীয় ম্যাচটি হয়েছিল টাই। আর শনিবার পুনেতে অনুষ্ঠিত তৃতীয় ম্যাচে জিতে গেল ওয়েস্ট ইন্ডিজ।

টসে জিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ব্যাট করতে পাঠিয়েছিলেন বিরাট কোহলি। ৫৫ রানে ৩ উইকেট হারিয়েও ওয়েস্ট ইন্ডিজকে খেলায় ফিরিয়ে আনেন হোপ। তিনি ৯৫ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংস উপহার দেন।
জবাবে ভারতও ভালোভাবে শুরু করে। বিশেষ করে কোহলির সেঞ্চুরির (১০৭ রান) কারণে এই ম্যাচে ভারতের হারার কোনো কারণই হয়তো ছিল না। কিন্তু সব হিসাব উল্টে দেয় ক্যারিবিয়ান ফিল্ডাররা। তারা ২৪০ রানেই ভারতকে অল-আউট করে দেয়।

সেঞ্চুরির হ্যাটট্রিক! ফের রেকর্ড বইয়ে বিরাট
কঙ্ক্ষিত সিঙ্গল নেয়ার পর খালি একবার ড্রেসিং রুমের দিকে তাকিয়ে ব্যাটটা তোলা। ফের মন দেয়া ব্যাটিংয়ে। কোনো সেলিব্রেশন নেই। নেই কোনও উচ্ছ্বাস। ‘এখননোঅনেক কাজ বাকি।’ এটাই এখন বিরাটের মানসিকতা। দামোদর শেঠের মতো অল্পেতে খুশি নন ভারতীয় অধিনায়ক। হয়তো তার মনে তখনই পরাজয়ের আশঙ্কা উঁকি দিয়েছিল। তিনি সেঞ্চুরি করেছিলেন, আর দল গেছে হেরে।

তবে মাঠে দাঁড়িয়ে নিজের কাজটা নিষ্ঠার সঙ্গে করলে কী হতে পারে তা বারবার দেখাচ্ছেন বিরাট। ফর্ম ইজ টেম্পোরারি, ক্লাস ইজ পারমানেন্ট। এই পুরনো ইংরেজি প্রবাদটা বিরাটের জন্য পাল্টে যাচ্ছে প্রতি দিন। তার জন্য ক্লাসও পারমানেন্ট, ফর্মও। গত তিন-চার বছরে তার রেকর্ডের দিকে তাকালেই ব্যাপারটা পরিষ্কার হয়ে যাবে। সেই তালিকায় যুক্ত হল আরও একটি রেকর্ড। পর পর তিনটি একদিনের ম্যাচে সেঞ্চুরি করে এবিডি, জাহির আব্বাস, সাইদ আনোয়ারদের সঙ্গে রেকর্ড বইয়ে জায়গা করে নিলেন বিরাট। প্রথম ভারতীয় হিসাবে।

এমনিতে একদিনের ম্যাচে ব্যাটিংয়ের বেশিরভাগ রেকর্ড ভারতীয়দের দখলে। প্রথম ২০০ রান, সবচেয়ে বেশি ২০০ রান, ব্যক্তিগত সবচেয়ে বেশি রান, এক ইনিংসে সবচেয়ে বেশি রান ইত্যাদি ইত্যাদি। তালিকাটা বেশ লম্বা। আশ্চর্যজনক ভাবে পর পর তিনটি সেঞ্চুরির তালিকায় এত দিন কোনো ভারতীয় ব্যাটম্যান ছিলেন না। আপাতত বিরাট যে ভাবে খেলছেন, তাতে এই রেকর্ড নতুন করে লিখতে হতে পারে। পর পর ৪টি সেঞ্চুরি করে একেবারে শীর্ষে রয়েছেন শ্রীলঙ্কার কুমার সঙ্গকারা। কে বলতে পারে, সেটা হয়তো আগামী সপ্তাহেই টপকে যেতে পারেন বিরাট। সিরিজে এখনও ২টি ম্যাচ বাকি রয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here