এক লাখ টাকা চাঁদা না পেয়ে রিকশা চালককে ডাকাতি মামলায় গ্রেফতার!

229

ভূক্তভোগী রিকশা চালক একছারের পরিবারের সংবাদ সম্মেলন। ছবি – নয়া দিগন্ত
এক লাখ টাকা ঘুষ না দেয়ায় নিরাপরাধ এক রিকশা চালককে ডাকাতি মামলায় গ্রেফতারের অভিযোগ পাওয়া গেছে পুলিশের বিরুদ্ধে। ভূক্তভোগী রিকশা চালকের নাম একছার আলী (৪৫)। বগুড়ার কাহালু থানা পুলিশের বিরুদ্ধে এই অভিযোগ উঠেছে। ভূক্তভোগী একছার কাহালু উপজেলার পাতানজো গ্রামের মৃত আহম্মদ আলীর পুত্র।

রোববার দুপুরে বগুড়া প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এমন অভিযোগ করেছেন ভূক্তভোগী রিকশা চালক একছারের ছোট ভাই জাহাঙ্গীর আলম। সংবাদ সস্মেলনে পরিবারের অন্য সদস্যরাও উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে জাহাঙ্গীর আলম অভিযোগ করেন, বগুড়ার কাহালু থানার এসআই হেলাল ও ব্রজেশ্বর স্থানীয় দূর্গাপুর ইউপি চেয়ারম্যান বদরুজ্জামান খান বদরের যোগসাজসে রিকশা চালক একছারকে গত ২৯ এপ্রিল দুপুর ২টায় শালিসের কথা বলে থানায় ডেকে নেয়। এরপর থানায় গেলে এসআই হেলাল একছারের নিকট এক লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে।

একছার এই টাকা দিতে অস্বীকার করলে ডাকাতি, ছিনতাই ও অস্ত্র মামলায় ফাঁসিয়ে দেয়ার হুমকি দেয় পুলিশ। এরপর কাহালু উপজেলা চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও পৌরসভার মেয়র রিকশা চালক একছারকে ছেড়ে দেয়ার সুপারিশ করলেও তাকে ছেড়ে না দিয়ে মিথ্যা ও ভিত্তিহীন ডাকাতি মামলায় আদালতে প্রেরণ করে পুলিশ।

সংবাদ সম্মেলনে অবিলম্বে একছারের মুক্তি ও অভিযুক্ত পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানানো হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here