কিশোরী ধর্ষণের অভিযোগে ক্ষদ্র নৃ-গোষ্ঠী যুবক গ্রেপ্তার

329

মিরসরাই প্রতিনিধি

মিরসরাইয়ে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী এক কিশোরীকে (১৩) ধর্ষণের অভিযোগে একই গোষ্ঠীর শিমুল ত্রিপুরা নামের এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গত বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার খৈয়াছরা ইউনিয়নের উজালিয়া পাড়ায় তরুণী ধর্ষণের ঘটনাটি ঘটে।

শুক্রবার বিকালে ধর্ষিতা কিশোরীর বাবা বাদী হয়ে মিরসরাই থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। পরে পুলিশ ওইদিন সন্ধ্যার পরপর মামলার প্রধান আসামীকে গহীন পাহাড় থেকে গ্রেপ্তার করে।

থানায় দায়েরকৃত মামলা ও ধর্ষিতা কিশোরীর বাবার সাথে কথা বলে জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার উজালিয়া পাড়ার পাশের একটি পাহাড়ে দৈনিক শ্রমিক হিসেবে কাজ করতে যায় ওই তরুণী। এসময় বাগান পরিস্কার কাজ দেখাশুনা করছিল শিমুল ত্রিপুরা। ওইদিন বেলা ১টার সময় পাশের পাহাড়ে নিয়ে ধর্ষণ করে পরে বাগান পরিস্কার কাজের ঠিকাদার মান্নানকে দিয়ে পুনরায় ধর্ষণ করায় শিমুল।

পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হওয়া ধর্ষক শিমুল ত্রিপুরা স্থানীয় সাংবাদিকদের কাছে ধর্ষণের অভিযোগ স্বীকার করে বলে, ‘আমি ধর্ষন করে মান্নান নামের এক ব্যক্তির হাতে ওই তরুণীকে তুলে দিয়েছিলাম।’

ঘটনার আদ্যোপান্ত জানিয়ে মিরসরাই থানার ওসি জাহিদুল কবির বলেন, ‘ঘটনাটি ঘটেছিল গত বৃহস্পতিবার দুপুরে। খৈয়াছড়া উজালিয়া পাড়ার ১৩ বছর বয়সি এক কিশোরী একই পাড়ার শিমুল ত্রিপুরা প্রেমের ছলে ধর্ষণ করে। পরে ঠিকাদারী ব্যবসার সাথে জড়িত মান্নান নামের এক লম্পটের কাছে তাকে (কিশোরী) তুলে দেয়া হয়। গতকাল শুক্রবার ধর্ষিতা তরুণীর বাবা থানায় এসে পুলিশকে ঘটনাটি জানানোর পর আমরা নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা রজু করা হয়। পরে কয়েক ঘন্টার ব্যবধানে মামলার প্রধান আসামী শিমুলকে গহীন পাহাড় থেকে আমরা গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হই। অপর আসামী মান্নানকেও আমরা খুব দ্রুত গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হব।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here